ইতিহাস

বাংলাদেশের জাতীয় ইতিহাস দীর্ঘকালের ঐতিহ্যমন্ডিত, বীরত্বপূর্ণ ও সংগ্রামের ধারায় গৌরবোজ্জল। প্রাচীন কাল থেকে দেশের জনগণ মেহনতী মানুষ শ্রমে, ঘামে, কর্ম ও সাধনায় একটি সমৃদ্ধ জনপদ নির্মাণ করেছিল। শস্য-শ্যামলা, সুজলা-সুফলা বলে সুখ্যাত বাংলাদেশের জনগণের ঘরে ঘরে গোলাভরা ধান ও পুকুর ভরা মাছ ছিল। মোট কথা দেশের জনগণ সুখে শান্তিতে বাস করত। কিন্তু এই সুখ বাঙ্গালীর জীবনে বেশী দিন টিকতে পারে নি। প্রায় আড়াইশ বছর আগে ১৭৫৭ সালের ২৩শে জুন পলাশীর যুদ্ধে বাংলার শেষ নবাব সিরাজ উদ্দৌলাকে পরাজিত করে বৃটিশ উপনিবেশিক শক্তি বাংলা দখল করে নেয়। আগেও বাংলার উপকূলে বর্গীদের হামলায় জনগণ লুটতরাজ এবং অত্যাচারের শিকার হয়। কিন্তু তা ছিল তাৎক্ষনিক এবং সাময়িক। কিন্তু ইষ্ট ইন্ডিয়া কোম্পানীর বাংলা দখল স্থায়ীত্ব লাভ করে। শুরু হয় শোষণ ও অত্যাচারের পালা। আস্তে আস্তে বৃটিশ উপনিবেশিক শাসন সমগ্র ভারতবর্ষে বিস্তার লাভ করে। সেদিন তাদেরকে বিতাড়িত করার কোন চেষ্টাই বাঙ্গালী বা ভারতবাসী সফল করতে পারে নি। এমনকি ১৮৫৭ সালের সিপাহী বিদ্রোহও সফল হয়নি। তাদের দিনে দিনে গড়ে উঠা আইন কানুন, বাংলার মানুষকে শৃঙ্খলিত এবং সত্যিকার ভাবেই পরাধীন করে তোলে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here